এলোভেরার বিভিন্ন ব্যবহার জেনে নিন !

0
23

তথ্যগুলো ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করা।

আজকাল বিভিন্ন সুপারশপ এবং কাঁচা বাজারে অ্যালোভেরা এবং এর থেকে নিঃসৃত জেল কিনতে পাওয়া যায়। এর কিছু ভিন্নধর্মী ব্যবহার সম্পর্কে জানাবো আজকের আয়োজনে। পোড়ার তৎক্ষণাৎ চিকিৎসায়ঃ রান্নাঘরে কাজ করতে গিয়ে হাত পুড়ে গিয়েছে? হাতে কাছে অ্যালোভেরা অথবা অ্যালোভেরা জেল থাকলে আক্রান্ত স্থানে আলতোভাবে লাগিয়ে নিন। দেখবেন ত্বকের জ্বালা অনেকটাই কমে গিয়েছে। খুশকি নির্মূল করতেঃ অ্যালোভেরা পাতার খোসা ছিলে তা ব্লেন্ড করে নিন। এই পেস্টটি চুলের গোড়ায় ম্যাসেজ করে ৩০ মিনিট রেখে দিন। পরে সাধারণ উপায়ে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। রোদে পোড়া সারাতেঃ রোদে বের হলেই ত্বক পুড়ে কালচেভাব ধারণ করে? রোদে পোড়া সারাতে প্রতি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে আক্রান্ত স্থানে অ্যালোভেরা জেল (অথবা কাঁচা অ্যালোভেরার ভিতরের অংশ ব্লেন্ড করে) এর প্রলেপ দিন। ৩০ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এক সপ্তাহের মধ্যেই ত্বকে বিস্তর ফারাক দেখতে পাবেন। রুক্ষ চুল নরম করতেঃ কেমিক্যাল-যুক্ত কন্ডিশনার ব্যবহার করে করে চুলের বারোটা বেজে গিয়েছে? কন্ডিশনারের বদলে ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরা জেল। এতে করে চুল হবে আরও মসৃণ ও মোলায়েম। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতেঃ অ্যালোভেরা সেবন করলে এর উপকার পাওয়া যায় ত্বক ও চুলে। ত্বক ভিতর থেকে উজ্জ্বল করতে পান করতে পারেন অ্যালোভেরা জুস। ২টি অ্যালোভেরার পাতার ভিতরের অংশ এক কাপ লেবু/কমলালেবু/জাম্বুরার রস এর সাথে ব্লেন্ড করে নিন। ফ্রিজে ঠান্ডা করে এই পানীয় সেবন করলে কিছুদিনের মধ্যেই দেখবেন ত্বক উজ্জ্বল ও দাগহীন হয়ে উঠছে।

Content Protection by DMCA.com