কে এগিয়ে—গ্যালাক্সি এস ৮ নাকি আইফোন ৮?

0
12

প্রযুক্তিবিশ্বে সাড়া জাগিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং ঘোষণা করেছে গ্যালাক্সি এস ৮ নামের স্মার্টফোন। ইনফিনিটি ডিসপ্লে, ৫.৮ ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড পর্দা (২৯৬০ X ১৪৪০ পিক্সেল), ৩০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি, অ্যান্ড্রয়েড ৭.০, আঙুলের ছাপ, আইরিশ, চেহারা শনাক্তকরণ প্রযুক্তি রয়েছে এতে।
প্রযুক্তিবিশ্বে গুঞ্জন রয়েছে, এ বছরের অক্টোবর মাস নাগাদ অ্যাপল ঘোষণা দিতে পারে আইফোন ৮-এর।
এখন প্রযুক্তি বিশ্লেষকেরা বলছেন, স্যামসাংয়ে গ্যালাক্সি এস ৮-কে টক্কর দিতে হলে আইফোন ৮-এ বেশ কিছু অভিনব ফিচার থাকতে হবে। ইতিমধ্যে অবশ্য বেশ কিছু ফিচারের গুঞ্জন উঠেছে। এস ৮-কে ঠেকাতে আইফোন ৮-এ যেসব ফিচার থাকতে হবে, তা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট সিনেট।
বেজেলহীন ডিসপ্লে
যাঁরা এস ৮ দেখেছেন, তাঁরা ইতিমধ্যে জেনে গেছেন যে স্মার্টফোনটি প্রায় বেজেল বা ধারহীন। এর প্রায় ৮৩ শতাংশ স্ক্রিন। এতে স্মার্টফোনটি চমৎকার দেখায়। এস ৮-কে টেক্কা দিতে আইফোন ৮-এ এজ-টু-এজ বা স্ক্রিনজুড়ে দেওয়ার সুযোগ রয়েছে। এবারে আইফোন ৮-এর ক্ষেত্রে এলসিডি ডিসপ্লে ছেড়ে ওএলইডি ডিসপ্লে আনতে পারে অ্যাপল। এতে এজ-টু-এজ ডিসপ্লে জুড়ে দেওয়া সম্ভব। অ্যাপল এবারে স্যামসাংয়ের কাছ থেকে ওএলইডি ডিসপ্লে কিনছে বলে গুঞ্জন রয়েছে। প্রশ্ন হচ্ছে, স্যামসাং কী তাঁদের মূল প্রতিদ্বন্দ্বীকে সেরা স্ক্রিন সরবরাহ করবে?

টাচ আইডি

এস ৮ ও আইফোন ৮-এ যদি স্ক্রিন একই হয়, তারপরও স্যামসাংয়ের ফোনকে টেক্কা দিতে টাচ আইডি সেন্সর ও হোম বাটন যুক্ত করতে পারে অ্যাপল। ২০১৫ সালে আলট্রাসাউন্ড ইমেজিং ব্যবহারের পেটেন্ট করিয়েছে অ্যাপল। থ্রিডি টাচ প্রযুক্তির কারণে আইফোনে বাটন ছাড়াই ইন্টারফেস নিয়ন্ত্রণের সুবিধা থাকবে। এতে হোম বাটন যোগ না করলেও চলবে। এস ৮-এর ক্ষেত্রে হোমবাটন রাখেনি স্যামসাং। ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার দিয়েছে পেছন দিকে।

.

গ্যালাক্সি এস ৮ফেস রিকগনিশন
এস ৮ স্মার্টফোনটি আনলক করার জন্য আইরিশ স্ক্যানার ও ফেস রিকগনিশন সুবিধা এনেছে অ্যাপল। এ ক্ষেত্রে আইফোন ৮-এ ডেপথ-সেন্সিং ক্যামেরা যুক্ত করে স্যামসাংয়ের চেয়ে অ্যাপলের এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। মুখের ম্যাপিং করার পাশাপাশি এ ক্যামেরা পরিবেশের ম্যাপও তৈরি করে অগমেনটেড রিয়্যালিটি সুবিধা দিতে পারে।

ব্যাটারি

ব্যাটারিতে চার্জ ধরে রাখার ক্ষেত্রে স্যামসাংয়ের নতুন ফোনের চেয়ে উন্নত সুবিধা আনতে পারে অ্যাপল। এস ৮-এ এস ৮ প্লাসের ক্ষেত্রে আকারের দিক থেকে প্রায় এস ৭-এর মতোই ব্যাটারি এনেছে স্যামসাং। অবশ্য যদি ব্যাটারি সক্ষমতায় এস ৮-কে টেক্কা না দিতে পারে, তবে চার্জিংয়ের ক্ষেত্রে উন্নত সুবিধা যুক্ত করবে অ্যাপল। অ্যাপলের এমন একটি পেটেন্ট রয়েছে, যা দিয়ে স্বল্প দূরত্বে তারহীন উপায়ে চার্জ দেওয়া যাবে।

দাম
যদি কোনোভাবেই এস ৮-কে আটকাতে না পারে, তবে অ্যাপল আইফোনের দাম কমানোর বিষয়টি ভাবতে পারে। গুঞ্জন রয়েছে, আইফোন ৮-এর দাম হবে এক হাজার মার্কিন ডলার। যুক্তরাষ্ট্রে এস ৮-এর দাম রাখা হতে পারে ৭২০ মার্কিন ডলার এবং এস ৮ প্লাসের দাম হবে ৮৫০ মার্কিন ডলার। ২১ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে এবং ২৮ এপ্রিল বিশ্বের অন্যান্য দেশের বাজারে আসবে স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি এস ৮।

Content Protection by DMCA.com